ওয়ালটন ৪২তম জাতীয় এ্যথলেটিকস প্রতিযোগিতা-২০১৮ শুরু ২৪ জানুয়ারী, ২০১৯

 

বাংলাদেশ এ্যাথলেটিকস ফেডারেশনের ব্যবস্থাপনায় ওয়ালটন এর পৃষ্ঠপোষকতায় ওয়ালটন ৪২তম জাতীয় এ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতা-২০১৮ আগামী ২৪, ২৫ ও ২৬ জানুয়ারী,২০১৯ ইং তারিখ বৃহস্পতিবার, শুক্রবার ও শনিবার, বঙ্গবন্ধু জাতীয় ষ্টেডিয়াম, ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে।

আগামী ২৪ জানুয়ারী, ২০১৯ বৃহস্পতিবার বিকাল ০৩:০০টায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করতে সদয় সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জনাব মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল এম.পি। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন জনাব মোঃ হারুনুর রশিদ, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এবং এফ.এম ইকবাল বিন আনোয়ান (ডন), সিনিয়র অপারেটর ডাইরেক্টর (হেড অব দ্যা ডিপার্টমেন্ট গেমস এন্ড স্পোর্টস) ওয়ালটন গ্রপ।

প্রতিযোগিতা উপলক্ষ্যে আজ মঙ্গলবার বিকাল ০৩:০০টায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের সভাকক্ষে প্রেস বিফ্রিং অনুষ্ঠিত হয়। বিফ্রিংয়ে বাংলাদেশ এ্যাথলেটিকস ফেডারেশনের মাননীয় সভাপতি জনাব এ এস এম আলী কবীর, সহ-সভাপতি জনাব মোঃ শাহ আলম, সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আব্দুর রকিব (মন্টু), যুগ্ম-সম্পাদক জনাব ফরিদ খান চৌধুরী, কোষাধ্যক্ষ জনাব মোঃ জামাল হোসেন, মিঃ জয়ন্ত কুমার দেব, জনাব মোঃ মহিউদ্দিন আহমেদ মোস্তাক, জনাব মোঃ ইকবাল হোসেন, জনাব মোঃ আমিনুল ইসলাম, জনাব মোশারফ হোসেন মিলন, মিসেস রাজিয়া সুলতানা অনু ও এ্যাথলেটিকস ফেডারেশনের অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন গ্রপের প্রতিনিধি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন এফ.এম ইকবাল বিন আনোয়ান (ডন), সিনিয়র অপারেটর ডাইরেক্টর (হেড অব দ্যা ডিপার্টমেন্ট গেমস এন্ড স্পোর্টস) ওয়ালটন গ্রপ।

ওয়ালটন ৪২তম জাতীয় এ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতা-২০১৮ এ ৬৪টি জেলা, ৮টি বিভাগ, বিশ্ববিদ্যালয়, সকল শিক্ষাবোর্ড, সকল শারিরীক শিক্ষা কলেজ, বিজেএমসি, বিকেএসপি, এ্যাফিলিয়িটেড সকল সামরিক ও বেসামরিক বাহিনী ও সকল এ্যাফিলিয়েটেড সংস্থাসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রায় ৫০০ জন (পুরুষ ও মহিলা) এ্যাথলেট অংশ নেবেন। ৩দিন ব্যাপী এই প্রতিযোগিতায় প্রতিযোগিরা দুইটি গ্রপে ৩৬ টি ইভেন্টে খেলবেন। এর মধ্যে পুরুষদের ২২টি ও মহিলাদের ১৪টি ইভেন্ট অনুষ্ঠিত হবে। অদ্য বিকাল ০৫ টা পযন্ত ২৭টি দলের ৩৬০ জনের এন্ট্রি সম্পন্ন হয়েছে । প্রতিযোগিতার পূর্বেরদিন ২৩ জানুয়ারী সন্ধ্যা ৬ টা পযন্ত আরো ১০-১৫ টি দলের ১০০-১৫০জন খেলোয়াড় অংশগ্রহন করবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

উল্লেখ্য যে, প্রতিযোগিতার ফলাফল নির্ধারনের জন্য ইলেকট্রনিক্স ফটোফিনিশিং মেশিন ব্যবহার করা হবে। বিশেষ আকষন ৩৬টি ইভেন্টে র্স্বণ পদক প্রাপ্তদের স্পন্সর প্রতিষ্টান ও ফেডারেশনের পক্ষ থেকে বিশেষ পুরষ্কার দেওয়া হবে, নতুন জাতীয় রেকডধারীদের ফেডারেশনের পক্ষ থেকে নগত ৫,০০০/- (পাঁচ হাজার) টাকা প্রদান করা হবে ও স্পন্সর প্রতিষ্ঠান থেকে বিশেষ পুরষ্কার দেওয়া হবে। সেরা খেলোয়াড় ছেলে ও মেয়ে বড় ধরনের পুরষ্কার দেওয়া হবে।

আগামী ২৬ জানুয়ারী, ২০১৯ বিকাল ৬:০০টায় প্রতিযোগিতার আনুষ্ঠানিক সমাপনী ঘোষনা ও পুরুস্কার বিতরণ করবেন ফেডারেশনের মাননীয় সভাপতি জনাব এ এস এম আলী কবীর।